ঋত্বিক ঘটকের পৈতৃক ভিটা সংরক্ষণের দাবিতে মানববন্ধন ও গণস্বাক্ষর কর্মসূচি

বাংলা চলচ্চিত্রের পুরোধা ব্যক্তিত্ব ঋত্বিক ঘটকের পৈতৃক বাড়ি ভেঙে ফেলে সাইকেল গ্যারেজ তৈরীর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদ। এই ভবনটি সংরক্ষণ ও রক্ষণাবেক্ষণের দাবি দীর্ঘদিনের হলেও ১৯৮৯ সালে উল্টো সামরিক জান্তা সরকারের আমলে হোমিওপ্যাথ কলেজ প্রতিষ্ঠিত হতে আমরা দেখেছি। স্থানীয় ‘ঋত্বিক চলচ্চিত্র সংসদ’ তিন বছর ধরে সেখানে ‘ঋত্বিক চলচ্চিত্র কেন্দ্র’ করার দাবি জানিয়ে আসলেও এখনো এর বাস্তবায়ন হয়নি। বরং প্রশাসনের উদাসীনতার সুযোগ নিয়ে আগ্রাসী কলেজ কর্তৃপক্ষ বিগত ২১ ডিসেম্বর সাইকেল স্ট্যান্ডের অযুহাতে ভবনের একাংশ গুড়িয়ে দেয় যেটি অত্যন্ত ঘৃণিত এবং হীনতার পরিচায়ক।

 

আমরা অতিদ্রুত ঐ ভবনে স্থাপিত হোমিওপ্যাথিক কলেজের স্থানান্তর চাই। ঋত্বিক ঘটকের পৈতৃক ভিটাকে ‘সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য’ হিসেবে ঘোষণা করে বাংলা চলচ্চিত্রের এই প্রতিবাদী নায়কের প্রতি এতদিন ধরে চলা অসম্মানের অবসান হোক। চলচ্চিত্র কেন্দ্রের পাশাপাশি উক্ত স্থানে ‘ঋত্বিক ঘটক সংগ্রহশালা’ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে তরুণদের মাঝে ঋত্বিকচর্চার ব্যবস্থা হোক।  

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদ প্রতিবাদ এবং দাবি আদায়ের লক্ষ্যে মানববন্ধন, গণস্বাক্ষর গ্রহণ এবং তথ্য মন্ত্রণালয় বরাবর স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচির পরিকল্পনা করেছে।

 

মানববন্ধন: বিকাল ৩:৩০টা, ২৬ ডিসেম্বর

স্থান: রাজু ভাস্কর্য, টিএসসি

 

গণস্বাক্ষর কর্মসূচি: বিকেল ৪টা, ২৬ ডিসেম্বর। গণস্বাক্ষর গ্রহণ ২৮ তারিখ পর্যন্ত চলবে।

স্থান: টিএসসি চত্বর

 

উন্মুক্ত চলচ্চিত্র প্রদর্শনী: সন্ধ্যা ৬টা, ২৭ ও ২৮ ডিসেম্বর। ঋত্বিক ঘটকের কালজয়ী চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হবে।

স্থান: টিএসসি চত্বর 

 

স্মারকলিপি প্রদান: ২৯ ডিসেম্বর।

গণস্বাক্ষর এর পত্রসহ স্মারকলিপি তথ্য মন্ত্রণালয়ে প্রদান করা হবে।

 

সকলকে উক্ত কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের জন্য আহ্বান করা হচ্ছে।